Wednesday, December 6, 2023
Latest Newsদেশফিচার নিউজ

ফিলিস্তিনিদের পক্ষে ভারত সবসময় ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছে: আমীরে জামাআত

সামাউল্লাহ মল্লিক, দৈনিক সমাচার, নয়াদিল্লি : ফিলিস্তিনকে সমর্থন করা ভারতের জাতীয় স্বার্থ বলে মন্তব্য করলেন জামাআতে ইসলামী হিন্দের আমীর (কেন্দ্রীয় সভাপতি) সাইয়েদ সাদাতুল্লাহ হুসাইনি। ফিলিস্তিন ইস্যু সম্পর্কে সাধারণ জনগণের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেও মনে করেন তিনি। সাদাতুল্লাহ হুসাইনির কথায়, “দেশের সংবাদমাধ্যম একটি নির্দিষ্ট ধারণা তৈরি করতে মিথ্যা এবং ভুল খবর প্রচার করছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রকৃত ঘটনা জনগণের সামনে তুলে ধরার দায়িত্ব আমাদের সকলের। জনগণকে জানাতে হবে যে, এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত মানুষ ফিলিস্তিনিরা এবং ইসরাইল সবচেয়ে বড় অত্যাচারী।” জামাআতে ইসলামীর আমীর গণমাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “গণতন্ত্র, স্বাধীনতা, মানবাধিকার এবং জাতিগত সমতার মৌলিক নীতি ও মূল্যবোধের উপর ভিত্তি করে আমাদের বিশ্ব গড়ে উঠেছে। কিন্তু ফিলিস্তিনে সে সবই ব্যাপক হারে লঙ্ঘিত হচ্ছে। ফিলিস্তিনের সমস্যা একক না, একটি দেশের সমস্যা না, এটা সমগ্ৰ মানবতার সমস্যা। আমাদের মূল্যবোধ এভাবে পদদলিত হতে থাকলে, গত ২০০ বছরে আমরা যা অর্জন করেছি তা গাজার সাথেই চাপা পড়ে যাবে।” ফিলিস্তিনের দুর্দশার কথা বলতে গিয়ে সাদাতুল্লাহ হুসাইনি বলেন, “ফিলিস্তিনের অভ্যন্তরে প্রায় ৬ মিলিয়ন মানুষ চরম দুর্দশায় বসবাস করছে। অনেক ফিলিস্তিনি পুরুষ, নারী ও শিশু কারাগারে বন্দি, যেখানে তারা নিরাপদ নয়। তাদের বাড়িঘরে বোমাবর্ষণ করা হচ্ছে। প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক শিশু মারা যাচ্ছে। স্কুল ও হাসপাতাল ধ্বংশ করা হচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে এসব চলছে।”

 

ফিলিস্তিনে চলমান ইসরায়েলি নৃশংসতা দেখে নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করা মানব সভ্যতার অপমান বলে উল্লেখ করেছেন সাদাতুল্লাহ হুসাইনি। জাতীয় স্বার্থের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “ফিলিস্তিনকে সমর্থন করা ভারতের জাতীয় স্বার্থ। মূল্যবোধের ভিত্তিতে আমরা আমাদের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছি। সেই মূল্যবোধ আমাদের ফিলিস্তিনিদের সমর্থনের আহ্বান জানায়। আমরা যদি নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের পাশে না দাঁড়াই, তার মানে আমরা আমাদের জাতীয় মূল্যবোধ ও ইতিহাসকে বিসর্জন দিচ্ছি।” তাঁর কথায়, “আমরা উন্নয়নশীল দেশের দলকে নেতৃত্ব দিয়েছি। ফিলিস্তিন ইস্যুটি সাম্রাজ্যবাদ ও বর্বরতার বিরুদ্ধে শক্তিশালী শক্তি হওয়ার একটি সুবর্ণ সুযোগ। এই সুযোগ হাতছাড়া করা জাতীয় স্বার্থ বিরোধী। ফিলিস্তিনিদের পক্ষে ভারত সবসময় ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছে। এখন যদি আবার পদক্ষেপ নেওয়া হয়, তা ফিলিস্তিনি ভাইদের জন্য হবে বড় সেবা।”

Leave a Reply

error: Content is protected !!