Fact CheckLatest Newsফিচার নিউজ

আটার প্যাকেটে ১৫ হাজার টাকা? ‛আমির খানের আজব দান’ – সত্য না গুজব?

কী ছড়িয়েছে?

সম্প্রতি সোশ্যাল সাইটে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে। এতে বলিউড অভিনেতা আমির খানের ছবিসহ লেখা হয়েছে, ‘আমির খানের আজব দান। পুরোটা পড়ে দেখুন, আমির খান এক গাড়ি ভর্তি করে পাশের বস্তিগুলোতে আটার প্যাকেট পাঠালেন। উনার ছেলেরা সেখানে গিয়ে মাইকে ঘোষণা করলো যাদের যাদের আটার দরকার আছে তারা এসে আটা নিয়ে যেতে পারেন। কিন্তু প্রতিটি ব্যক্তিকে মাত্র এক কিলো আটা দেয়া হবে। যাদের ঘরে মোটামুটি খাবার ছিল তারা কেউই গেল না মাত্র এক কিলো আটা আনার জন্য। কিন্তু যাদের কাছে সেই এক কিলো আটা ওই মুহূর্তে খুব জরুরি অর্থাৎ যারা সত্যিই খুব গরিব তারা এসে হাজির হলেন এবং একটা করে আটার প্যাকেট নিয়ে গেলেন। সকালে আটার প্যাকেট খুলতেই আটার সাথে বেরিয়ে এলো নগদ ১৫ হাজার টাকা। পরে খোঁজ নিয়ে জানা গেল ওই ট্রাক আমির খান পাঠিয়েছিলেন। অশেষ ধন্যবাদ আমির।’

কোথায় ছড়িয়েছে?

ফেসবুক এবং হোয়াটসঅ্যাপে বিপুল শেয়ার হয়েছে এই দানের খবর। এমনকি কিছু ওয়েব পোর্টালেও আমিরের এই দানের খবর প্রকাশিত করা হয়েছে।

আবার এই বিষয়টি নিয়েই ফেসবুকে একটি ৫৭ সেকেন্ডের ভিডিও শেয়ার করা হচ্ছে। ফেসবুক পোস্টের ক্যাপশনে ভিডিওটিকে ‛আমির খানের আজব দান’ বলে শেয়ার করা হচ্ছে।

ভিডিওটির বাম উইন্ডোতে দিকে দেখা যায়, অ্যালুমিনিয়ামের গামলায় রাখা আটা হাঁতড়ে দু’হাজর টাকার নোটের ব্যান্ডেল বের করা হচ্ছে। ভিডিওর ডানদিকের উইন্ডোতে এক যুবককে হিন্দিতে টিকটক সমাজকে উদ্দেশ্যে আটা দান করার গল্পটি বলতে দেখা যাচ্ছে। রাতের বেলা ওই আটা বিতরণের ঘটনাটি কোনও জনৈক ব্যক্তি ঘটিয়েছেন বলে জানান তিনি। ওই অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান তিনি।

এই তথ্য কি সঠিক?

আমির খানের আটার প্যাকেটে নগদ ১৫ হাজার টাকা দান করা নিয়ে গল্পটি কাল্পনিক, যার উৎস একটি টিকটক ভিডিও।

সত্যি কী এবং দৈনিক সমাচার কী ভাবে তা যাচাই করল?

আমরা রিভার্স সার্চ করে দেখতে পেয়েছি মাঠের মধ্যে ত্রাণ নেওয়ার ছবিটি আসলে বাংলাদেশের। সে দেশের পাবনা জেলায় শিল্প প্রতিষ্ঠান ‛স্কয়ার’ গ্রুপের ত্রাণ বিতরনের ছবিটি প্রকাশিত হয়েছে বিডি প্রতিদিনের ২ এপ্রিল ২০২০-এর প্রতিবেদনে।

এছাড়া ভিডিওর সত্যতা জানতে গিয়ে আমরা ফেসবুকে একটি ১ মিনিট ১ সেকেন্ডের ভিডিও খুঁজে পাই। ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন মোহাম্মদ শেখ কেভিএস নামের এক ব্যক্তি। যদিও ভিডিওটি দেখলেই স্পষ্ট হয় যে এটি একটি টিকটক ভিডিও এবং ভিডিওটি বানিয়েছেন খান সাহেব নামের এক ব্যক্তি। টিকটকে গিয়ে মূল ভিডিওটি খুঁজে দেখা যায়, এই খান সাহেব তাঁর ভিডিওতে আমির খানের নাম কষ্মিনকালেও নেননি।

এছাড়া আমির খানের এতো বড় ঘটনা দেশের কোনো প্রথম সারির পত্রিকায় আসেনি। শুধু তাই নয়, এখন পর্যন্ত আমির কী দান করেছেন তা তিনি নিজেও বলেননি। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে— তাহলে ভাইরাল হওয়া পোস্টের বিষয়টি জানাজানি হলো কীভাবে? এছাড়া পোস্টের নিচে কোনো তথ্যসূত্রও উল্লেখ নেই। তাই এটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।

হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ট্যুইটারে যা-ই দেখবেন, তা-ই বিশ্বাস করবেন না। শেয়ারও করে দেবেন না। এ ভাবেই ছড়িয়ে পড়ে ভুয়ো খবর। যাচাই করুন। কোনও খবর, তথ্য, ছবি বা ভিডিয়ো নিয়ে মনে সংশয় দেখা দিলে আমাদের জানান এই ঠিকানায় doiniksamachar@gmail.com

Leave a Reply

error: Content is protected !!