Sunday, April 14, 2024
দেশফিচার নিউজ

পাবলিক সেফটি অ্যাক্টে গ্রেফতার ফারুক আব্দুল্লাহ, তীব্র নিন্দা জানালেন আসাদউদ্দিন ওয়েসী

ছবি : সংগৃহিত

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক : ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান তথা জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ডা. ফারুক আব্দুল্লাহকে পাবলিক সেফটি অ্যাক্টে (পিএসএ) গ্রেফতার করা হয়েছে। এই প্রথম কোনও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট প্রয়োগ করা হল। ফারুক আব্দুল্লাহকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মজলিশে ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (মিম) প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েসী।

ওয়েসী বলেন, সংসদে ৩৭০ ধারা বাতিল করার আগে ফারুক আবদুল্লাহ নিজেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। গোটা বিশ্ব তা দেখেছে। এখন কীভাবে তাঁকে জননিরাপত্তা আইনে আটক করা যায়? তিনি কীভাবে দেশের জন্য হুমকিস্বরূপ হতে পারেন। প্রধানমন্ত্রী যদি কারও কাছ থেকে বিপদে পড়বেন তখন কেন তাঁর সাথে সাক্ষাৎ করবেন? অমিত শাহ সংসদে চিৎকার করে বলেছিলেন যে তাঁকে আটক করা হয়নি বা হেফাজতে নেয়াও হয়নি।

পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট বা জননিরাপত্তা আইন অনুযায়ী বিচার ছাড়াই দু’বছর পর্যন্ত কোনও ব্যক্তিকে আটক করতে রাখতে পারে সরকার। কাশ্মীরের এক পুলিশ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ফারুক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে পিএসএ অ্যাক্ট প্রয়োগ করা হয়েছে এবং সেই আইনেই তাঁকে আটক করা হয়েছে। এদিকে সুপ্রিমকোর্ট এক আবেদনের ভিত্তিতে শুনানিতে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ফারুক আবদুল্লাহকে কেন আটক করে রাখা হয়েছে সে সম্পর্কে জবাব চেয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর ওই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

ওয়েসীর কথায়, মাশরাত আলম একজন বিচ্ছিন্নতাবাদী, অন্যদিকে ফারুক আবদুল্লাহ একজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। আপনারা উভয়কে এক করে দিলেন? উভয়কেই জননিরাপত্তা আইনে আটক করা হয়েছে। আপনারা যখন ৮০ বছর বয়সী মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে জননিরাপত্তা আইনে কার্যকর করেন তাহলে এর অর্থ হল- কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়। আপনারা যা বলছেন তা নিছক মিথ্যা। সংসদে ৩৭০ ধারা বাতিলের বিল আনার আগে যখন প্রধানমন্ত্রী তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন তখন তিনি দেশের জন্য হুমকি ছিলেন না, এখন হয়ে গেছেন!

Leave a Reply

error: Content is protected !!