Saturday, March 2, 2024
Latest Newsফিচার নিউজরাজ্য

তাঁকে সব দিয়েছে মুর্শিদাবাদ, অথচ সেই জেলাকে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ও দেননি প্রণব

সামাউল্লাহ মল্লিক, দৈনিক সমাচার, কলকাতা : প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। দিল্লির বাসভবনে পড়ে মাথায় চোট পান তিনি। যার জেরে মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধে। অস্ত্রোপচার প্রয়োজন বলে জানান চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচারের আগে জানা যায় তিনি করোনা আক্রান্ত। তার পরও অস্ত্রপচারের সিদ্ধান্ত নেন দিল্লি ক্যান্টনমেন্টের সেনা হাসপাতালের চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচারের পর থেকেই তাঁর শারীরিক অবস্থা ছিল সঙ্কটজনক। ভেন্টিলেশনে রাখা হয় তাঁকে। কিন্তু ক্রমশই তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। অবশেষে আজ বিকেলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

প্রণব মুখোপাধ্যায় বহু বছর বাংলার সক্রিয় রাজনীতিতে অংশ নিয়ে আসছিলেন। কিন্তু ২০০৪ সালে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর আসন থেকে জিতে প্রথমবার লোকসভায় যান প্রণব মুখোপাধ্যায়। সেই প্রথম রাজ্য রাজনীতির বাইরে দিল্লির রাজনীতিতে জায়গা করে নেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। তারপর আর ঘুরে তাকাতে হয়নি। ২০১২ সালের ২৫ জুলাই প্রথম বাঙালি হিসাবে ভারতের রাষ্ট্রপতি হন প্রণব মুখোপাধ্যায়। বলাবাহুল্য মুর্শিদাবাদ থেকেই তাঁর রাষ্ট্রপতি হওয়ার পথ সুগম হয়ে উঠেছিল।

প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পর তাঁর ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়ও মুর্শিদাবাবাদের জঙ্গিপুর আসন থেকে জয়ী হয়ে রাজনীতিতে জায়গা করে নিয়েছেন। এহেন মুখোপাধ্যায় পরিবার কিন্তু মুর্শিদাবাদের জন্য তেমন কিছুই করেননি। বেশ কয়েকবছর ধরে মুর্শিদাবাদে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি ওঠা শুরু হয়েছে। অথচ কোনওদিন এবিষয়ে মুখ খোলেননি প্রণব মুখোপাধ্যায়। রাষ্ট্রপতি থাকাকালীন অবস্থায় অথবা প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হিসেবে তিনি ইচ্ছা করলেই মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয় হওয়া জলভাত ছিল। অথচ যে মুর্শিদাবাদ থেকে তাঁর উত্থান, সেই মুর্শিদাবাদকেই বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বিদায় নিলেন মুর্শিদাবাদের ‛গর্ব’ প্রণব মুখোপাধ্যায়।

 

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!