Latest Newsদেশফিচার নিউজ

‘যারা গোমাংস খায় তাদের ডিএনএ বাকি ভারতীয়দের থেকে আলাদা’, মন্তব্য উগ্ৰ হিন্দুত্ববাদী সাধ্বী প্রাচীর

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক: আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত সম্প্রতি মুস‌লিম রাষ্ট্রীয় মঞ্চে মন্তব্য করেছিলেন, সমস্ত ভারতীয়র শরীরেই এক ডিএনএ রয়েছে। প্রবীণ নেতার সেই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় এবার বিতর্কিত মন্তব্য করলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বিতর্কিত নেত্রী সাধ্বী প্রাচী। দাবি করলেন, সমস্ত ভারতীয়র ডিএনএ-ই এক। কেবল যারা গোমাংস ভক্ষণ করে তাদের ডিএনএ আলাদা।

ঠিক কী বলেছিলেন আরএসএস প্রধান? গত ৪ জুলাই গাজিয়াবাদে এক অনুষ্ঠানে মোহন ভাগবত বলেন, ‘‘সমস্ত ভারতীয়র ডিএনএ-ই এক। তার ধর্ম যাই হোক না কেন।’’ গণতন্ত্রে হিন্দু ও মুসলমানের মধ্যে কোনও ফারাক থাকতে পারে না বলেও জানান তিনি। এমনকী, ধর্মের নামে নিপীড়ন, মারধরের ঘটনার বিরোধিতা করে প্রবীণ নেতা বলেছিলেন, যে হিন্দুরা এই ধরনের কাজে জড়িত থাকে তারা আসলে হিন্দুত্বের বিরোধী। শনিবার রাজস্থানের দৌসায় এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন সাধ্বী। তখনই তিনি মোহন ভাগবতের বক্তব্যের বিরোধিতা করে ওই মন্তব্য করেন। জানিয়ে দেন, বাকি ভারতীয়দের সঙ্গে গোমাংস ভক্ষণকারীদের ডিএনএ এক হতে পারে না।

এমন মন্তব্যের পাশাপাশি লাভ জিহাদ নিয়েও তাঁর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাধ্বী। নেত্রীর কথায়, ‘‘লাভ জিহাদের মাধ্যমে যেভাবে মেয়েদের ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে, তা থামাতেই হবে সরকারকে।’’ এদিকে দেশের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নিয়েও মুখ খুলেছেন সাধ্বী। তাঁর দাবি, সংসদে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করার আইন আনা হোক। সেই আইনে দুইয়ের বেশি সন্তানের অভিভাবকদের সরকারি সুবিধা থেকে বঞ্চিত করা হোক।

এদিকে মোহন ভাগবতের বক্তব্য ঘিরে কেউ কেউ বিরোধিতা করলেও আরএসএসের এক শীর্ষ নেতার দাবি, যারা মোহন ভাগবতের বক্তব্যের বিরোধিতা করছে তারা কেউ স্বয়ংসেবক নন। মোহন ভাগবত ভারতের হৃদয়ের কথাই বলেছেন৷

Leave a Reply

error: Content is protected !!