দেশফিচার নিউজ

কাফিল খানের পর তারিক কুরেশি! আহত কাশ্মীরিদের চিকিৎসা কেন? শুরু তদন্ত

ছবি : সংগৃহিত

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক : এ যেন মগের মুলুক! হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ করে শিশুদের প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা করে জেল খাটতে হয়েছিল ডাঃ কাফিল খানকে। এইবার ছররা গুলিতে আহতদের চিকিৎসা ও চোখের অস্ত্রোপচারের জন্য সরঞ্জাম চেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে বিপাকে পড়েছেন কাশ্মীরের চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ তারিক কুরেশি। তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। কুরেশি অবশ্য ডাঃ কাফিল খানের সুরেই কথা বলছেন। তিনি বলেন, ‘এ সবে আমি ভয় পাচ্ছি না। আমার কাজ করে যাব। ছররায় আহত এবং অন্য রোগীদের চিকিৎসা আমি বন্ধ করব না।’

শ্রী মহারাজা হরি সিংহ (এসএমএইচএস) মেডিক্যাল কলেজে ছররায় আহতদের চিকিৎসা করেন তারিক কুরেশি। তিনি ওই মেডিক্যাল কলেজের চক্ষু বিভাগের প্রধান। সম্প্রতি শ্রীনগরের গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজের (জিএমসি) প্রিন্সিপাল-কে চিঠি লিখে ছররায় আহতদের চিকিৎসার সরঞ্জাম চেয়েছিলেনন কুরেশি। ওই চিঠি ডিভিশনাল কমিশনারকে পাঠিয়ে দেন প্রিন্সিপাল। এর পরই ডিভিশনাল কমিশনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। কুরেশিকে ‘প্ররোচক’ আখ্যা দিয়ে তাঁর অতীত সম্পর্কে জানতে বলেছে প্রশাসন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!