Sunday, March 3, 2024
Latest Newsদেশফিচার নিউজ

সমলিঙ্গের বিয়েতে স্বীকৃতি চেয়ে মামলা, খারিজ দিল্লি হাইকোর্টের

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক: সমলিঙ্গের বিয়েতে স্বীকৃতি চেয়ে মামলা জমা পড়েছিল দিল্লি হাইকোর্টে। কিন্তু সেই আবেদনে সায় না দিয়ে মামলা খারিজ করে দিল দিল্লি হাইকোর্ট। জানিয়ে দিল, আমাদের মূল্যবোধ সমলিঙ্গের বিয়েকে স্বীকৃতি দেয় না। স্বীকৃতি দিলে তা চিরাচরিত ভাবধারার বিরোধী হবে।

এদিন দিল্লি হাইকোর্টে মুখ্য বিচারপতি ডি এন পটেল এবং বিচারপতি প্রতীক জালানের ডিভিশন বেঞ্চে ওই জনস্বার্থ মামলার শুনানি হয়। সেখানে কেন্দ্রের হয়ে সওয়াল করেন সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা। তিনি বলেন, ‘‌আমাদের আইন, মূল্যবোধ বা সমাজ সমলিঙ্গের বিবাহে সায় দেয় না। এটি সমলিঙ্গের যুগলের মধ্যে প্রতিশ্রুতিমাত্র।’‌

১৯৫৬ সালে হিন্দু বিবাহ আইনের আওতায় সমলিঙ্গের বিবাহ নথিভুক্ত করার দাবি জানিয়ে মামলাটি করেন অভিজিৎ আইয়ার মিত্র সহ কয়েক জন আন্দোলনকারী। আবেদনকারীদের বক্তব্য, সুপ্রিম কোর্ট ২০১৮ সালে সমকামিতাকে অপরাধের আওতা থেকে বাদ দিয়েছে। ফলে সমলিঙ্গের বিবাহ রেজিস্ট্রেশন করতে দেওয়া হোক। সেই সঙ্গে তাঁদের আরও যুক্তি ছিল, হিন্দু বিবাহ আইনের ৫ নম্বর ধারায়, যুগলের এক জন নারী ও অপর জনকে পুরুষ হতেই হবে, তা বলা নেই। দু’জন হিন্দুর মধ্যে বিবাহের কথা বলা হয়েছে। তবে সেই যুক্তি খণ্ডন করেন সলিসিটর জেনারেল।

তাঁর দাবি, এক জন পুরুষ ও নারীর মধ্যেই কেবল বিবাহ হতে পারে, যাতে ওই আইনের আওতায় তা নিষিদ্ধ সম্পর্কের মধ্যে না পড়ে। পাশাপাশি, তুষার মেহতার আরও যুক্তি, ‘‌২০১৮ সালে নভতেজ সিং জোহর মামলার রায়ে সুপ্রিম কোর্ট ৩৭৭ ধারা আংশিক রদ করে সমলিঙ্গের মানুষদের অপরাধীর তকমা দেওয়া বন্ধ করেছিল। এর বেশিও নয়, এর কমও নয়।’

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!