Latest Newsফিচার নিউজরাজ্য

‘মোদী-শাহের মদতে শীতলকুচিতে গণহত্যা, আমি সেখানে যাবই’, কমিশনকে চ্যালেঞ্জ মমতার

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শীতলকুচিতে রাজনৈতিক দলের নেতা–নেত্রীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা। আর এই নিষেধাজ্ঞা জারি নিয়ে টুইট করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচন কমিশনকে তোপ দেগে তিনি সেখানে যাবেন না বলেও লিখেছেন টুইটারে। রবিবাসরীয় সকালে টুইটে মমতা লিখেছেন, ‘‌বিজেপি সমস্ত চেষ্টা করেও মানুষের সঙ্গে আমার দেখা করা এবং তাঁদের দুঃখ–বেদনা ভাগ করে নেওয়া আটকাতে পারবে না। ওরা কোচবিহারের তিনদিন আমার ভাইবোনদের সঙ্গে দেখা করায় বাধা দিতে পারে। তবে চতুর্থ দিন আমি সেখানে যাবই।’‌

উল্লেখ্য, শীতলকুচির জোড়পাটকির ১২৬ নং বুথে শনিবার সকালে ভোট শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা এলোপাথাড়ি গুলি চালায় বলে অভিযোগ করেন গ্রামবাসীরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ, একটি বাচ্চাকে মারধরের ঘটনায় প্রতিবাদ করতেই কিছু মানুষ জমায়েত করেছিল। সেই সময় ওই জমায়েত লক্ষ্য করে গুলি চালায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। তাতে চারজনের মৃত্যু হয়।

এরপরই কার্যত নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে নির্দেশিকা জারি করে নির্বাচন কমিশন। সেখানে জানানো হয়েছে, কোচবিহারের নয় বিধানসভা কেন্দ্রে আগামী ৭২ ঘণ্টা ঢুকতে পারবেন না কোনও রাজনৈতিক নেতা–নেত্রী। আর তাতেই আটকে যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সফর। পরিকল্পনা থাকলেও আজ রবিবার শীতলকুচি যেতে পারবেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমন রক্তাক্ত নির্বাচন বাংলায় শেষ কবে হয়েছে! এই প্রশ্নই যেন কুড়ে খাচ্ছে বাংলার মানুষকে। নির্বাচনের নামে রক্তারক্তি কাণ্ড বাংলার বিভিন্ন জায়গায়। তাই সেখানে যেতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে বাগড়া দিয়েছে কমিশনের নির্দেশ।

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!