Sunday, March 3, 2024
Latest Newsখেলাফিচার নিউজ

দুবাইতে মুম্বাই শিবিরে সচিনের ছেলে অর্জুনকে নিয়ে প্রশ্ন

দৈনিক সমাচার, স্পোর্টস ডেস্ক : একবার সৌরভ গাঙ্গুলিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আচ্ছা সৌরভ এই যে ক্রীড়া ক্ষেত্রে স্বনামধন্য বাবার ক্যারিশমাকে কাজে লাগিয়ে তাঁর পুত্র কিংবা কন্যারা বাড়তি সুযোগ পান, এটা আপনি কি চোখে দেখেন? সৌরভ প্রথমে থতমত খেয়ে গিয়েছিলেন, তারপর ঠোঁটের কোণে মুচকি হাসিতে বলেছিলেন, ‛এটা নিয়ে কিছু করার নেই এটা চলতেই থাকবে।’ ‛দেখুন, সেই পুত্র বা কন্যাকে সুবিধা দেওয়া হয় তার বাবার কথা ভেবেই, কারণ তার বাবা দেশকে অনেক সন্মান এনে দিয়েছেন। তাই এটা বন্ধ করা যাবে না, তা বলে কী যার প্রতিভা নেই, যাকে নিয়ে কিছুই হবে না, তাকে যদি আপনি যোগ্য কাউকে বঞ্চিত রেখে সুবিধা দেন, সেই নিয়ে কথা উঠবেই।’

সৌরভের সেই কথা ফের ঘুরে ফিরে এল আইপিএলের ঘটনাকে কেন্দ্র করে। যেখানে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলের শিবিরে বহাল তবিয়তে রয়েছেন সচিন পুত্র অর্জুন। দলের লেগস্পিনার রাহুল চাহারের একটি ভিডিও নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে। সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে মুম্বাই দলের সঙ্গে সুইমিং পুলে রয়েছেন অর্জুনও। সেই ছবিতে দেখা যায় দুই বিদেশি পেসার ট্রেন্ট বোল্ট ও জেমস প্যাটিনসনের সঙ্গে রাহুল চাহারসহ ভারতের বেশ কয়েকজন বোলার সুইমিং পুলে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন। কিন্তু নেটিজেনদের আগ্ৰহের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে সচিন পুত্রকে কেন্দ্র করে। তাহলে কী রাতারাতি মুম্বাই দলের সদস্য হয়ে গেলেন অর্জুন? নাকি তাঁকে নেট বোলার হিসাবে নেওয়া হয়েছে, যদি তাই হয়, তা হলে তিনি সুইমিং পুলে কি করছেন?

এর আগেও মুম্বাই রঞ্জি দলের হয়ে নেট প্র্যাকটিস সেরেছেন অর্জুন। এমনকি তাঁকে দেখা গিয়েছে লর্ডসে ভারতীয় দলের নেটেও। কিন্তু আইপিএলের মতো একটা চরম পেশাদার লিগে কী করে অর্জুন ডাক পান, সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। যথাযথ কোনও ব্যাখ্যা না পাওয়া গেলেও, এ দেশের মিডিয়ার একাংশ এও বলতে শুরু করেছে, নিলামে না থাকা কিংবা নিলামের বাইরে থেকে না কেনা হলেও, মুম্বাইয়ের হয়ে খেলার সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়নি অর্জুনের। সেক্ষেত্রে মুম্বাই ইণ্ডিয়ান্স দলের রিজার্ভ বেঞ্চে তিনি স্থান করে নিতে পারেন। এমনিতে অবশ্য বাঁহাতি পেসার অর্জুনের পারফরম্যান্স আহামরি নয়, জাতীয় দলের হয়ে অনূর্ধ্ব ১৯ দলে ছিলেন একবারই। কিন্তু বাবার দৌলতে তিনি যদি আইপিএল খেলে নিতে পারেন, তাহলে স্বপ্ন পূরণ অনেকটায়।

 

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!