Sunday, April 21, 2024
দেশফিচার নিউজ

তাবরেজ মামলায় পুলিশের নতুন চার্জ শিট, ১১ জনের বিরুদ্ধে ফের খুনের মামলা দায়ের

ছবি : সংগৃহিত

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক : এ যেন ঠিক সাপ-সিঁড়ির খেলা! তাবরেজ আনসারি গণপিটুনি মামলায় ফের নয়া মোড়। আট দিনের মাথায় নতুন করে আবার চার্জ শিট দিল ঝাড়খণ্ড পুলিশ। কয়েক দিন আগে দেওয়া চার্জ শিটে পুলিশ বলেছিল, গণপিটুনিতে প্রাণ হারানো তাবরেজ আনসারি নাকি খুন হননি, মারা গিয়েছেন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে। এই কথা বলে ১১ জন অভিযুক্তর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তুলে নিয়েছিল ঝাড়খণ্ড পুলিশ।

বুধবার ফের নতুন করে চার্জ শিট দিয়েছে পুলিশ। এই চার্জ শিটে আবার অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ ফেরানো হয়েছে। নতুন মেডিক্যাল রিপোর্ট পাওয়ার পরেই এই অভিযোগ ফেরানো হয়েছে বলে রাঁচির এক আধিকারিক জানিয়েছেন। আগে তাবরেজ মামলার ময়না-তদন্তের চূড়ান্ত রিপোর্টে বলা হয়েছিল, হৃদরোগই তাবরেজের মৃত্যুর কারণ। এই রিপোর্ট দেখে, অভিযুক্তদের উপর থেকে খুনের অভিযোগ প্রত্যাহারও করে পুলিশ।

এ বার নতুন মেডিক্যাল রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে এল। জামশেদপুরের এমজিএম মেডিক্যাল কলেজের পাঁচ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সই করেছেন এই রিপোর্টে। এতে বলা হয়েছে, একাধিক আঘাতের ফলেই মৃত্যু হয় তাবরেজের। মারের চোটে খুলি ফেটে, হার্টের প্রকোষ্ঠে রক্ত জমে, অঙ্গপ্রত্যঙ্গ রক্তশূন্য হয়ে যাওয়ার কারণে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় তাবরেজের। তাতেই মারা যান তিনি। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের বক্তব্য, মার খেয়ে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণেই হৃদরোগ হয়েছিল।

নতুন মেডিক্যাল রিপোর্ট প্রকাশের পরে অভিযুক্ত ১১ জনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (খুন) ধারা যু্ক্ত করা হয়েছে। নতুন চার্জশিটে খুনের অভিযোগ সাব্যস্ত করা নিয়ে পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, “যেহেতু আগের মেডিক্যাল রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, তাবরেজ আনসারির হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু পরিষ্কার নয়, পরে পুলিশ দ্বিতীয়বার এমজেএম মেডিক্যাল কলেজ এবং হাসপাতাল থেকে অন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়।”

Leave a Reply

error: Content is protected !!