Sunday, April 21, 2024
দেশ

কেমন আছে ভূস্বর্গ? কাশ্মীর থেকে ফিরে বিস্তারিত রিপোর্ট পেশ ওয়েলফেয়ার পার্টির

ছবি : নিজস্ব

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৈনিক সমাচার, নয়াদিল্লি : ৩৭০ ও ৩৫-এ ধারা অবলুপ্তির পর কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শ্রীনগর ও বারামুল্লা সফর করল ওয়েলফেয়ার পার্টি। ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর সেখানকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন পার্টির নেতারা। পার্টির সর্বভারতীয় সভাপতি ডঃ এস কিউ আর ইলিয়াস এবং পার্টির সাধারণ সম্পাদক মণ্ডলীর মিস সীমা মহসিন ও সুব্রমানি অরুঙ্গাম এর নেতৃত্বে একটি বিশেষ দল কাশ্মীর পরিদর্শনে যায়।

বিশেষ দলটি শ্রীনগর ও বারামুল্লার বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষদের সঙ্গে দেখা করে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেন। প্রসঙ্গত, গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে সেখানকার সমস্ত রকম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। হঠাৎ করে ৩৭০ ও ৩৫-এ ধারা অবলুপ্তিকে উপত্যকার জনগণ ক্ষিপ্ত হয়ে পড়ে। কাশ্মীর সফর থেকে ফিরে দিল্লিতে সাংবাদিক সম্মেলন করে সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট পেশ করেছে ওয়েলফেয়ার পার্টি। পার্টির দাবি, এটি অসাংবিধানিক ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার হত্যার স্বরূপ হিসেবে দেখছেন এলাকার মানুষ জন।

ওয়েলফেয়ার পার্টি আরও জানায়, এলাকায় কারফিউ জারি হওয়াতে ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে সেখানকার মানুষ। স্কুল, কলেজ, উনিভার্সিটি সব বন্ধ। রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করলেই ধরপাকড় শুরু হয়ে যাচ্ছে। জানা গিয়েছে, এ পর্যন্ত ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার মানুষ গ্রেফতার হয়েছেন। যাদের মধ্যে রয়েছেন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, আইনজীবী, অধ্যক্ষ ও বিভিন্ন সমাজকর্মীরা। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ছয় দফা দাবি পেশ করেন।

ওয়েলফেয়ার পার্টি উত্থাপিত দাবীসমূহ –

১. কারফিউ তুলে দিয়ে কাশ্মীরের মানুষদের সঙ্গে কথা বলতে হবে এবং সেখানে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে নিয়ে আসতে হবে।

২. সমস্ত রকম যোগাযোগমাধ্যম চালু করতে হবে।

৩. উপত্যকাতে গ্রেফতার হওয়া সমস্ত মানুষকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।

৪. তাদের নিজেস্ব সংষ্কৃতি ও বিশ্বাস ফিরিয়ে দিতে হবে।

৫. তাদের মানবীয় অধিকার কেড়ে নেওয়া বন্ধ করতে হবে।

৬. দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের কাশ্মীর নিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্যের লাগাম টানতে হবে।

Leave a Reply

error: Content is protected !!