Latest Newsফিচার নিউজরাজ্য

দোকান, বাজার, মদের দোকান খোলা থাকলেও স্কুল কলেজে পঠন-পাঠন বন্ধ কেন?: এসআইও হাওড়া

নিজস্ব সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া, ০৯ সেপ্টেম্বর: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ কাটিয়ে উঠে বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই জনজীবন ছন্দে ফিরেছে। সমস্ত প্রকার জমায়েত করাতেও বৈধতা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষাঙ্গনে তালা ঝুলছে। তাই অবিলম্বে স্বাস্থ্য বিধি মেনে বিদ্যালয় খোলার দাবি জানালো স্টুডেন্টস ইসলামিক অর্গানাইজেশন অফ ইন্ডিয়া, হাওড়া জেলা শাখা। সংগঠনের জেলা সভাপতি জিয়াউল হুদা বলেন, “প্রায় দু’বছর তাণ্ডব চালিয়ে করোনা এখন কিছুটা হলেও স্তিমিত। এমতবস্থায় দোকান, বাজার, মদের দোকান, আনন্দ অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে ছাড় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু জাতির মেরুদণ্ড হিসেবে উল্লেখিত শিক্ষার জন্য শিক্ষাঙ্গন এখনও বন্ধ রাখা হয়েছে।”

উল্লেখ্য যে, রাজ্যে দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ আছে এবং অনলাইন শিক্ষাই ব্যাপক বৈষম্যের স্বীকার হচ্ছে বহু পড়ুয়া। ফলত স্কুলছুট ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে জিয়াউল হুদা স্কুলছুটদের পুনরায় বিদ্যালয়ে ফিরিয়ে আনার দাবি জানান। শিক্ষাঙ্গনে পঠন-পাঠন শুরু এবং স্কুলছুট নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে তিনি বলেন, “স্কুলছুটদের ফেরাতে আমরা পড়ুয়াদের বাড়ি-বাড়ি যাচ্ছি, অভিভাবকদের সঙ্গে আমাদের কর্মীরা দেখা করছেন।” এই দিন জিয়াউল হুদা সমস্ত পড়ুয়াদের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন প্রদানের দাবি জানান এবং কোভিড-বিধি মেনে শিক্ষাঙ্গন চালানোর জন্য সরকারের কাছে একগুচ্ছ পরামর্শ পেশ করেন। সেই সঙ্গে তিনি বিদ্যালয়ে পঠন-পাঠন শুরুর জন্য রাজ্য সরকার সদর্থক উদ্যোগ না গ্রহণ করলে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা দেন।

এদিন বিকেলে উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের কার্যালয়ের সামনে একটি মানববন্ধন করে এসআইও হাওড়া জেলা শাখা। এই মানববন্ধনে সংগঠনের সকল স্তরের কর্মীদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি জিয়াউল হুদা, জেলা সম্পাদক সামাউল্লাহ মল্লিক, জনসংযোগ সম্পাদক শেখ খালিদ মাহমুদ, ক্যাম্পাস সেক্রেটারি আসলাম বিন আকরাম প্রমুখ।

 

মানববন্ধন চলাকালীন উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের অফিসে ডেপুটেশন প্রদান করে সংগঠনটি। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার স্কুল খোলার দাবিতে দেশজুড়ে #NationalProtestDay পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এসআইও ইন্ডিয়া। তারই অংশ হিসেবে এদিনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে হাওড়া জেলা এসআইও।

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!