Sunday, April 14, 2024
দেশফিচার নিউজ

কাশ্মীর স্বাভাবিক হলে ফারুক আব্দুল্লাহ আটক কেন? খোঁচা কপিল সিব্বলের

ছবি : সংগৃহিত

দৈনিক সমাচার, ডিজিটাল ডেস্ক : কাশ্মীরের পরিস্থিতি যদি স্বাভাবিক হয় তাহলে ফারুক আব্দুল্লাহকে আটকে রাখা হয়েছে কেন? সোশ্যাল সাইটে মোদী সরকারকে বিঁধলেন কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা তথা সুপ্রিমকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী কপিল সিব্বল। দু’দিন আগেই জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ডা. ফারুক আব্দুল্লাহকে জননিরাপত্তা আইনে আটক করা হয়েছে।

কপিল সিব্বল বলেন, ‘বিজেপি দাবি করে, জম্মু-কাশ্মীরের ৯২ শতাংশ মানুষই সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। অমিত শাহ সংসদে জানান, ফারুক আবদুল্লাহকে আটকও করা হয়নি বা গ্রেফতারও করা হয়নি। সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক। এরপরে মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে যখন আর কোনও উদ্বেগ নেই, তখন কেন ফারুককে আটক করা হল? সেটা কি সুপ্রিমকোর্টে ভাইকোর আবেদনের প্রেক্ষিতেই?’

উল্লেখ্য, ফারুক আবদুল্লাহকে ‘অবৈধভাবে আটক’ করে রাখা হয়েছে, অভিযোগে সুপ্রিমকোর্টে আবেদন করেছিলেন তামিলনাড়ুর এমডিএমকে নেতা ভাইকো। তাঁর অভিযোগ, গত ৫ আগস্ট থেকে শ্রীনগরে নিজ বাড়িতে গৃহবন্দি রয়েছেন ফারুক। ভাইকো তাঁর আবেদনে বলেছেন, আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে অবৈধভাবে ফারুক আবদুল্লাহকে আটকে রাখা হয়েছে। সরকার তাঁর সাংবিধানিক ও ব্যক্তিগত অধিকার এবং বাক্‌স্বাধীনতা খর্ব করার চেষ্টা করছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে আদালতে পাল্টা সাফাইতে বলা হয়, আবদুল্লাহর আত্মীয় নন ভাইকো। একপ্রকার আইন লঙ্ঘন করেই জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মুক্তির জন্য আবেদন করেছেন তিনি। যদিও প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন, বিচারপতি এস এ বোবদে ও বিচারপতি এস এ নাজিরের সমন্বিত বেঞ্চ কেন্দ্রীয় সরকার ও জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনকে এ বিষয়ে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ওই আবেদনের পরবর্তী শুনানি হবে।

Leave a Reply

error: Content is protected !!