Latest Newsদেশফিচার নিউজ

“রাত জেগে আমরা ঘর বানায়ছিলাম, এখন মন্দিরের দাবি কইর‍্যা আমাগো খ্যাদায় দিল”

গুয়াহাটি, ২৪ সেপ্টেম্বর: দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য অসমের দরং জেলায় একটি শিবমন্দির নির্মাণের লক্ষ্যে হাজার হাজার বাঙালি মুসলিমকে তাদের ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করার পর বৃহস্পতিবার সেই আশ্রয়চ্যুতদের বিক্ষোভে পুলিশ গুলি চালিয়েছে। স্থানীয় সাংবাদিকরা পুলিশের গুলিতে অন্তত দুজনের মৃত্যু ও আরও বেশ কয়েকজনের আহত হওয়ার খবর জানিয়েছেন। দরং জেলার ধলপুর গ্রামে একটি প্রাচীন শিবমন্দিরকে অনেক বড় আকারে গড়ে তোলার লক্ষ্যে গত কয়েক মাস ধরেই অসম সরকার সেখানে দফায় দফায় উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে।

এই ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দা রহিমা শেখ সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “নদীর বুকেই বারবার ঘর বাঁধি আর সেই নদীর বুক থেকেই বারবার আমাদের খ্যাদায়ে দেয়। অথচ আমাদের কাগজপাতি সব আছে – এনআরসি, প্যান কার্ড। নিজেরা খাই বা না-খাই সরকারি খাজনা ঠিকই দিয়ে যাচ্ছি। সেই তিরাশি সালেরও কত আগে থেকে আমরা এখানে থাকতেসি। তহন এইহানে মন্দির-টন্দির কিসুই আসিল না, ছোট্ট একটা পাহাড় আসিল শুধু!” পাশ থেকে জাহানারা বেগম যোগ করেন, “রাত জেগে আমরা ঘর বানায়ছিলাম। আমরা দুখিয়া মানুষ … এখন মন্দিরের দাবি কইর‍্যা আমাগো খ্যাদায় দিল।” আর এক গ্রামবাসী হাসনু আরাও কাঁদতে কাঁদতে বলেন, “বড়ো দুঃখু পাইসু। আমি এতিয়া … মাটিবাড়ি নাই … এখন কইত যাম?”

 

Leave a Reply

error: Content is protected !!